Monday, May 16, 2016

হাসতে হাসতে চ্যাম্পিয়ন হবে মোহনবাগান | সুব্রত ভট্টাচার্য - এই সময়

এ বার ফেডারেশন কাপে হেসেখেলে চ্যাম্পিয়ন হবে মোহনবাগান৷ জোর গলায় এমন কথা জানিয়ে দিলেন সুব্রত ভট্টাচার্য৷ ভারতীয় ফুটবলে ফেডারেশন কাপের সবথেকে সফল মুখ মোহনবাগানের 'ঘরের ছেলে ' সুব্রত৷ ফুটবলার হিসেবে তিনি ৬ বার এই ট্রফি হাতে তুলেছেন৷ কোচ হিসেবে একবার মোহনবাগানকে , আর এক বার ইস্টবেঙ্গলকে চ্যাম্পিয়ন করেছেন৷ যা কেউই করতে পারেননি৷ ভারতসেরা হওয়ার নকআউট টুর্নামেন্টে তাঁর রেকর্ডই সবচেয়ে ভালো৷


রবিবার সেই সুব্রতই বলছিলেন , ' মোহনবাগান এখন ঠিক যে জায়গায় দাঁড়িয়ে আছে , তাতে ওদের চ্যাম্পিয়ন হওয়া শুধু সময়ের অপেক্ষা৷ আমি মনে করি , ওদের হেসেখেলে চ্যাম্পিয়ন হওয়া উচিত৷ ' সঞ্জয় সেনের টিমকে দেশের সেরা টিম বলার সঙ্গে অবশ্য উল্টো দিকটাও দেখাচ্ছেন সুব্রত৷ তাঁর কথায় , 'আমি যখন ফেডারেশন কাপ জিতেছিলাম ,
তখন প্রতিপক্ষরা খুবই ভালো ছিল৷ কোটি টাকার মাহিন্দ্রা টিমে দেশের সেরা ফুটবলাররা৷ চার্চিল টিমে ফর্মে থাকা স্ট্রাইকার ইয়াকুবু৷ ডেম্পো , স্পোর্টিং , সালগাওকর , জেসিটিরাও খুব ভালো টিম৷ কিন্ত্ত এখন সে জায়গায় দেশের ১২-১৪টা ক্লাব বন্ধ হয়ে গিয়েছে৷ বেঙ্গালুরু, ইস্টবেঙ্গলই পারত মোহনবাগানকে কিছুটা চাপে ফেলতে৷ তারাও আগেই ছিটকে যাওয়ায় মোহনবাগানের সামনে কোনও বড় বাধা নেই৷

তাই ওদেরই চ্যাম্পিয়ন হওয়া উচিত৷ ' ফাইনালে আইজল বা স্পোর্টিং যেই পড়ুক না কেন , সুব্রত মনে করেন না , এরা কোনও অঘটন ঘটাতে পারে৷ আই লিগে আইজল মোহনবাগানকে হারিয়েছিল৷ গত মরসুমে স্পোর্টিং৷ সুব্রত বলছেন , 'ওই সব টিমের যা শক্তি , তাতে বারবার মোহনবাগানকে হারানো সম্ভব নয়৷ ওটা এক -দু'বার হয়ে যেতে পারে৷ 'সুব্রত অবশ্য মোহনবাগানের কৃতিত্বকে খাটো করছেন না৷ তাঁর কথায় , 'এ বার মোহনবাগান টিমটা দুরন্ত৷ আমার তো মনে হয় , এত ভালো স্ট্রাইকিং ফোর্স সাম্প্রতিককালে ভারতের কোনও ক্লাবে ছিল না৷ পুরো টিমটাও খুব ভালো৷ ' টিমের কথা তুললেও সুব্রত কিন্ত্ত কোচ সঞ্জয় সেনের সাফল্যটা এড়িয়ে যান৷ এমনকি সঞ্জয়ের জন্য কোনও পরামর্শও দিতে চাননি বাবলু৷ তাঁর মন্তব্য , 'কোচিংটা যে যার মতো করে করে৷ সঞ্জয় ওর মতো করে করছে৷

সুতরাং এখানে আমার মতামত ও নেবে কেন ? আর আমিই বা দেব কেন ? আমার অঙ্ক আমার কাছে৷ 'তবে আবেগের প্রশ্নে সুব্রত সমর্থকদের পাশে৷ 'আগে মোহনবাগান , ইস্টবেঙ্গল বছরে তিনটে -চারটে করে ট্রফি জিতত৷ সমর্থকরা তা নিয়ে মশগুল হয়ে থাকত৷ আর এখন দেখুন , কলকাতার দু'প্রধানে বছরের পর বছর ট্রফি ঢোকে না৷ মোহনবাগান আগের মরসুমে আই লিগ জিতেছে৷ এ বার কিছুই নেই৷ ভালো খেলে , বেশি গোল দিয়ে সমর্থকদের আনন্দ দেওয়া যায় না৷ আনন্দ দিতে ট্রফি চাই৷ এ মরসুমে বাগানের হাতে ফেডারেশন কাপ ছাড়া আর কিছু দেওয়ার নেই৷ সেটা মাথায় রেখেই টিমের ফুটবলাররা মোটিভেট করুক ফাইনালের জন্য৷ 'সুব্রতর গলাতেও ঝরে পড়ে ফেডারেশন কাপ পাওয়ার আকুতি৷

No comments:

Post a Comment